আর্থিং কি? আর্থিং কত প্রকার? আর্থিং এর উপাদান কয়টি?

সবাইকে স্বাগতম, আজকে আমাদের আর্টিকেলের বিষয় আর্থিং নিয়ে। এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আর্থিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। চলুন প্রথমেই জেনে নেয় আর্থিং কি।

আর্থিং কি বা কাকে বলে? (What is called Earthing in Bengali/Bangla?)

কোন তার, তারের আবরণ, কলকব্জা, কিংবা আসবাবপত্রের ব্যবহারের ধাতব আবরণ প্রভৃতির সঙ্গে মাটির বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপন করাকে আর্থিং বলে।

অথবা, অনাকাঙ্ক্ষিত বিদ্যুতের হাত হতে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি, সরঞ্জাম এবং মানুষকে রক্ষা করে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির ধাতু নির্মিত বহিরাবরণ হতে বৈদ্যুতিক কারেন্টকে কোন তারের সাহায্যে নিরাপদে মাটিতে প্রেরণের ব্যবস্থাকে আর্থিং বলে। এখন চলুন জেনে নেই আর্থ তার কাকে বলে?

 

আর্থ তার কাকে বলে?

বিদ্যুৎ বর্তনীতে যে তারটি মাটির সাথে সংযুক্ত থাকে তাকে আর্থ তার বলে। এর রং সবুজ বা হলুদ মেশানো হয়। আর্থ তার দিয়ে যন্ত্রে চলে আসা অতিরিক্ত বিদ্যুৎ সরাসরি মাটিতে চলে যায় এবং দূর্ঘটনা রোধ করে।

ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা :

  • আর্থ তার ব্যবহারের মাধ্যমে বৈদ্যুতিক শক খাওয়া থেকে বিরত থাকা যায়।
  • বৈদ্যুতিক দূর্ঘটনা অনেক কম ঘটে।
  • আর্থ তারের ভেতর দিয়ে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয় বলে ফিউজ তার পুড়ে বিদ্যুৎ বর্তনী বিচ্ছিন্ন হয়ে বৈদ্যুতিক যন্ত্রকে রক্ষা করে।

আর্থিং কেন ব্যবহার করা হয় : আর্থিং-কে অনেকেই গ্রাউন্ডিং বলে থাকে। কোন কারণে লাইনে লিকেজ কারেন্ট হলে আর্থিং সেই লিকেজ কারেন্টকে কোন প্রকার বিপদ না ঘটিয়ে তারের মাধ্যমে সহজে মাটিতে চলে যেতে সাহায্য করে।

 

আর্থিং এর প্রয়োজনীয়তা (Necessity of Earthing)

বৈদ্যুতিক সিস্টেমের, যন্ত্রপাতির, ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা ইত্যাদি বিষয়ে আর্থিং এর প্রয়োজনীয়তা নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • বজ্রপাত, শর্ট সার্কিট, কিংবা ইনসুলেশন নষ্ট হয়ে বা অন্য যে কোন কারণে ইলেকট্রিক্যাল ইকুইপমেন্ট বা সিস্টেমের ভোল্টেজ বেড়ে গেলে তা মাটিতে পৌছে দেওয়ার জন্য আর্থিং করা প্রয়োজন।
  • ট্রান্সফরমারের একটি লাইন ত্রুটিযুক্ত হলে হাই ভোল্টেজ উৎপত্তি হয়। উক্ত হাই ভোল্টেজকে মাটির মধ্যে প্রবাহিত করার জন্য আর্থিং এর প্রয়োজন।
  • অতিরিক্ত লিকেজ কারেন্ট আর্থিং তারের মধ্যে প্রবাহিত হয়ে লিকেজ সার্কিট ব্রেকারের সাহায্যে অল্টারনেটর, ট্রান্সফরমার ও বৈদ্যুতিক মেশিনারিজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য আর্থিং এর প্রয়োজন।
  • কোন কারণে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি বা সরঞ্জাম বডি হলে উক্ত যন্ত্রপাতি বা সরঞ্জাম যে ব্যক্তি চালনা করবে, সে ব্যক্তি এবং অন্য কোন প্রাণীকে বৈদ্যুতিক শক বা আঘাত থেকে রক্ষা করার জন্য আর্থিং করা প্রয়োজন।
  • বড় বড় ইমারতকে বজ্রপাত হতে রক্ষা করার জন্য আর্থিং এর প্রয়োজন।

 

আর্থিং এর উপাদান কয়টি ও কি কি? (What are the components of earthing?)

আর্থিং এর প্রয়োজনীয় প্রধান উপাদান তিনটি। যথা–

১। আর্থ প্লেট বা আর্থ ইলেকট্রোড,

২। মেইন আর্থিং লিড বা আর্থ তার এবং

৩। আর্থের নিরবচ্ছিন্ন তার।

যে কন্ডাকটরের সাহায্যে বৈদ্যুতিক আসবাবপত্র, যন্ত্রপাতি কিংবা ওয়্যারিংয়ের ধাতব আবরণ এর সঙ্গে আর্থিং লিড এর সংযোগ হয়, তাকে আর্থের নিরবচ্ছিন্ন বা আর্থ কন্টিনিউয়িটি কন্ডাকটর বলে। আর যে পরিবাহীর মাধ্যমে আর্থ কন্টিনিউয়িটি কন্ডাকটরকে আর্থ ইলেকট্রোড এর সাথে সংযোগ করে দেয় তাকে আর্থিং লিড বা আর্থ তার বলে।

 

আর্থ ইলেকট্রোডের শ্রেণিবিভাগ

মাটির সাথে কার্যকরী বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপনের জন্য আর্থ তার এর শেষে যে ধাতুর ফলক বা পাত কিংবা ধাতুর পাইপ মাটির ভিতরে পোঁতা থাকে তাকে আর্থ প্লেট বা আর্থ ইলেকট্রোড (তড়িৎদ্বার) বলে। যে ধাতুর আর্থ তার ব্যবহার করা হয়, সে ধাতুরই আর্থ প্লেট বা আর্থ ইলেকট্রোড হওয়া প্রয়োজন। আর্থিং এর উপাদানগুলোর অন্যতম হলো আর্থ ইলেকট্রোড।

আর্থিং এ গুরুত্ব অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের আর্থ ইলেকট্রোড ব্যবহার করা হয়। কলকারখানায় ভালো আর্থিং করতে হয় বলে প্লেট বা পাইপ ইলেকট্রোড ব্যবহার করা হয়। বাসা বাড়িতে রড ইলেকট্রোড দিয়ে আর্থিং করা হয়। সচরাচর পাঁচ রকমের আর্থ ইলেকট্রোড ব্যবহার করা হয়। এগুলো নিম্নরূপ– ১। পাইপ ইলেকট্রোড, ২। রড ইলেকট্রোড, ৩। প্লেট ইলেকট্রোড, ৪। স্ট্রিপ বা কন্ডাকটর ইলেকট্রোড ও ৫। শিট ইলেকট্রোড।

 

আর্থিং করার পদ্ধতি

সঠিক আর্থিং করতে সঠিক উপাদানসমূহ ব্যবহার করে নিয়ম মোতাবেক আর্থিং করতে হয়। ব্যবহৃত আর্থ ইলেকট্রোডের উপর ভিত্তি করে আর্থিং পাঁচ প্রকার হয়ে থাকে। যথা- ১। পাইপ আর্থিং, ২। রড আর্থিং, ৩। প্লেট আর্থিং, ৪। শিট আর্থিং এবং ৫। স্ট্রিপ আর্থিং।

 

আর্থ রেজিস্ট্যান্স (Earth resistance)

আর্থ লিড ও আর্থ ইলেকট্রোড এর সমন্বিত রেজিস্ট্যান্সকেই আর্থ রেজিস্ট্যান্স বলে। বাসা-বাড়ি, কল-কারখানাতে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদী নিরাপদে ব্যবহার করার জন্য, আর্থিং টার্মিনাল থেকে ১টি তামার তার টেনে নিয়মানুযায়ী মাটির নিচে প্রবেশ করিয়া রাখার নাম আর্থিং। আর্থিং এর রেজিস্ট্যান্স খুব কম হওয়া বাঞ্ছনীয়। সামান্য কারেন্টও যদি কোন সরঞ্জামাদির বডিতে আসে তা যেন সাথে সাথে আর্থিং এর মাধ্যমে খুব সহজেই মাটির নিচে যেতে পারে সে জন্যই আর্থ রেজিস্ট্যান্স কম হওয়া দরকার। বাসা বাড়ির আর্থ রেজিস্ট্যান্স ১Ω এর কম হওয়া উচিৎ এবং বড় বড় মিল ফ্যাক্টরিতে ৫Ω এর কম হওয়া উচিৎ।

আর্থ রেজিস্ট্যান্স পরিমাপ করার পদ্ধতি : আর্থ রেজিস্ট্যান্স বলতে সম্পূর্ণ আর্থিং পদ্ধতির রেজিস্ট্যান্সকেই বোঝায়। বাড়ি, ওয়ার্কশপ, কলকারখানার মেইন আর্থ টার্মিনাল থেকে আর্থ ইলেকট্রোডের মাধ্যমে যে রেজিস্ট্যান্স পাওয়া যায়, তাকে আর্থ রেজিস্ট্যান্স বলে। মোট কথা আর্থ লিড এবং আর্থের নিরবিচ্ছিন্ন তারের রেজিস্ট্যান্সকেই আর্থ রেজিস্ট্যান্স বলে।

আর্থিং সঠিকভাবে করা হয়েছে কীনা তা নিম্নলিখিত যে কোন পরীক্ষার মাধ্যমে জানা যায়।

১। মেগার বা আর্থ টেস্টার পদ্ধতি ও

২। টেস্ট ল্যাম্প পদ্ধতি।

 

প্রচলিত রেগুলেশন অনুযায়ী নিম্নতম আর্থ রেজিস্ট্যান্স ও সর্বোচ্চ আর্থ রেজিস্ট্যান্স

ইলেকট্রিফিকেশনের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী আর্থ রেজিস্ট্যান্স হলো আর্থ লিড ও ইলেকট্রোডের রেজিস্ট্যান্স। বাসা বাড়ির ক্ষেত্রে আর্থ রেজিস্ট্যান্স সর্বনিম্ন ১Ω এবং সর্বোচ্চ ৫Ω পর্যন্ত গ্রহণযোগ্য। আর বড় বড় মিল ফ্যাক্টরিতে আর্থ রেজিস্ট্যান্স ১Ω এর কম হওয়া উচিৎ। পাহাড়ি এলাকায় আর্থ রেজিস্ট্যান্সের মান ৮Ω পর্যন্ত গ্রহণযোগ্য।

 

আর্থিং এবং গ্রাউন্ডিং এর মধ্যে পার্থক্য কি? (What is difference between earthing and grounding?)

আর্থিং (Earthing)

  • এই পদ্ধতিটি মানুষকে বৈদ্যুতিক শক থেকে রক্ষা করে।
  • আর্থিং তারের রঙ সবুজ হয়।
  • আর্থিং এর সংযোগ যন্ত্রপাতির বডি থেকে মাটির সাথে থাকে।
  • আর্থিং নরমাল পজিশনে জিরো ভোল্টেজ থাকে।

গ্রাউন্ডিং (Grounding)

  • এই পদ্ধতিটি পুরো পাওয়ার সিস্টেমকে ত্রুটি থেকে রক্ষা করে।
  • গ্রাউন্ডিংয়ের জন্য ব্যবহৃত তারের রঙ কালো।
  • গ্রাউন্ডিং এর সংযোগ ট্রান্সফর্মার থেকে মাটির সাথে থাকে।
  • গ্রাউন্ডিংও নরমাল পজিশনে জিরো ভোল্টেজ থাকে।

 

অনুশীলনী

  • আর্থিং কাকে বলে?
  • আর্থিং-এর প্রয়োজনীয়তা লেখ।
  • আর্থিং-এ প্রয়োজনীয় উপাদানের নাম কী কী?
  • আর্থিং লিড কাকে বলে?
  • আর্থিং তৈরিতে মূল বিষয়গুলো কী কী?
  • আর্থিং ইনস্টলেশন টেস্ট পদ্ধতি কী কী?
  • আর্থ রেজিস্ট্যান্স কাকে বলে? আর্থ রেজিস্ট্যান্স পরিমাপের যে কোন একটি পদ্ধতি চিত্রসহ বর্ণনা কর।
  • আর্থ ইলেকট্রোড এর সঙ্গে মেইন সুইচের বডির সঙ্গে যে তারের সংযোগ থাকে তাকে কী বলে?
  • বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদির ধাতব আবরণ আর্থ করা হয় কী জন্য?
  • যে আর্থিং এ সব চাইতে কম খরচ হয়, এটা কী আর্থিং?
  • পাইপ আর্থিং এ পাইপের উপরিভাগ মাটির কতটুকু নিচে থাকা উচিত?
  • রড আর্থিং এ রড-ইলেকট্রোডকে মাটির কতটুকু নিচে থাকা উচিত?
  • রড আর্থিং এ রড-ইলেকট্রোডকে মাটির কতটুকু নিচে খাড়াভাবে পুঁততে হয়?
  • অতি ঘন-বসতি পূর্ণ এলাকায় যেখানে মাটি পাওয়া সম্ভব হয় না, সেখানে যে আর্থিং করা হয় তার নাম কী?
  • প্লেট-ইলেকট্রোড লোহার হলে, এর আকার কত হওয়া উচিত?

অনুশীলনী

১। আর্থিং রেজিস্ট্যান্স কত হওয়া দরকার?

উত্তর : বাসাবাড়ির জন্য সর্বোচ্চ ৫ ওহম এবং সাবস্টেশন ও পাওয়ার লাইনের জন্য সর্বোচ্চ ১ ওহম হওয়া দরকার।

 

২। আর্থিং ইলেকট্রোড কাকে বলে?

উত্তর : মাটির নিচে পুতে রাখা যে মেটালিক পাত, রড বা পাইপের সাহায্যে তারের মাধ্যমে আগত কারেন্ট মাটিতে ডিসচার্জ করা হয় তাকে আর্থিং ইলেকট্রোড বলে।

Tags : আর্থিং এর মানে কি? (What is meaning of earthing?); আর্থিং এর প্রকারভেদ (What are the types of earthing?); (Why is earthing done?); আর্থিং কিভাবে করা হয়? (How is earthing done?); আর্থিং এর উদ্দেশ্য কী? (What is the purpose of earthing?); আর্থিং এর সুবিধা কী? (What is the advantage of earthing?); আর্থিং এর অসুবিধা কী? (What is the disadvantage of earthing?); আর্থিং প্রক্রিয়া কী? (What is process of earthing?); আর্থিং রেজিস্ট্যান্স কত? (How is earthing resistance measured?); আর্থিং তারের সাইজ কত?; আর্থিং এর প্রয়োজনীয়তা কি?; আর্থিং তারের রং কি?; আর্থিং কোথায় ব্যবহার করা হয়?; আর্থিং কি কারনে হয়?; আর্থিং রডের দাম কত?; আর্থিং ও নিউট্রাল কি?; আর্থিং করার পদ্ধতি কি?; আর্থিং ও নিউট্রাল এর পার্থক্য কি?; প্লেট আর্থিং এর চিত্র; পাইপ আর্থিং এর চিত্র; আর্থ রেজিস্ট্যান্স কিভাবে মাপা হয়?; সাব স্টেশনের আর্থ রেজিস্ট্যান্স কত?; আর্থিং এর কাজ কি?; কেন নিউট্রাল লাইনে শক লাগেনা?; নিউট্রাল তার কাকে বলে?;

আর্থিং কি? আর্থিং কত প্রকার? আর্থিং এর উপাদান কয়টি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to top